• ঢাকা
  • সোমবার, ০৮ আগস্ট, ২০২২, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৯

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে ইউপি সদস্যসহ ১০ জন আহত


FavIcon
জহুরুল ইসলাম , সিরাজগঞ্জ :
প্রকাশিত: জুলাই ২, ২০২২, ০৯:২৬ পিএম
ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে ইউপি সদস্যসহ ১০ জন আহত
ছবি: সংগৃহীত

সিরাজগঞ্জের ঘোড়াচরা  ও খোড়ারগাতী সাথে  ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে মারপিটের ঘটনায় ইউপি সদস্যসহ ১০ জন আহত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গুরুতর আহত ৪জনকে সদর হাসতালে ভর্তি করা হয়েছে।
গতকাল (শুক্রবার) পানিয়াবাড়ী এলাকার ফুটবল মাঠে এ ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান - খেলা চলাকালে গোলকে কেন্দ্র করে খোড়ারগাতীর গ্রামের খেলোয়ারদের একটি বল গোলকিপারের পায়ে লেগে বলটি গোলের বাহির দিয়ে চলে যায়। ওই বল  খোড়ারগাতীর গ্রামের খেলার সমর্থকরা  গোলের দাবী করে। এই নিয়ে খোড়ারগাতীর সমর্থকদের সাথে ঘোড়াচরা টিমের খেলোয়ার ও সমর্থকের বাগবিতন্ডা শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে খোড়াগাতীর সমর্থকরা উশৃংখলতার সৃষ্টি করে। বিষয়টি নিয়ে উভয়ের মাঝে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এই ঘটনায় ঘোড়াচরার ইউপি সদস্য সহ ১৫ /২০ জন এগিয়ে যান বিশৃংখলা বন্ধের জন্য। এসময়  খোড়ারগাতীর সিদ্দিক ফকির, রব্বানী, রেজাউল ফকির, আনোয়ার ও রুবেলসহ ৫০/৬০ জন সন্ত্রাসী কায়দায়  ঘোড়াচরা এলাকার বাগবাটী ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আব্দুল মমিন(৫২) নাসির উদ্দিন(৪০) ফিরোজ (২৫) হাসান (৪৪)সহ ১০ জনকে ধারালো অস্ত্রসহ  লাঠি সোডা দিয়ে এ্যালোপাথারী মারপিট শুরু করে দেয়। মারপিটে প্রায় ১০ জন আহত হয়। 
গুরুতর আহত ইউপি সদস্য আব্দুল মমিন(৫২) নাসির উদ্দিন(৪০) ফিরোজ (২৫) হাসান (৪৪) কে স্থানীয়রা উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেতা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ইউপি সদস্য আব্দুল মমিন জানান - গোলকে কেন্দ্র করে ঘোড়ারগাতী গ্রামবাসী ঘোড়াচরাদের সাথে বিশৃংখলার সৃষ্টি করে। এ সময় উভয়ের মধ্যে উত্তেজনার এক পর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষ ঠেকাতে গেলে আমারদের উপর আকস্মিকভাবে হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করে। ঘোড়ারগাতী সন্ত্রাসী বাহিনীরা আমাদের  মাথায় ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতসহ  সারা শরীরে  রক্তাক্ত জখম করে।
এ ব্যপারে বাগবাটী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম বলেন- অহেতুক আমার পরিষদের ইউপি সদস্যকে মারপিটের করার বিষয়ে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। যারা ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দর সাথে আলোচনা না করে ফুটবল লীগের প্রতিযোগীতার আয়োজন করেছেন তারা  সামাজিক ও স্থানীয় রাজনীতিকে হেয়পতিপন্ন করার ষড়যন্ত্র বলে আমি মনে করি। ওই ঘটনাটি সঠিকভাবে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানাই। এ বিষয়ে মামলার প্রস্ততি চলছে। 



Side banner