• ঢাকা
  • রবিবার, ২৯ মে, ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯

ফুলবাড়ীতে রেলে পা-কাটা নারীর নাম ও পরিচয় মেলেনি এখনও


FavIcon
অমর চাঁদ গুপ্ত অপু, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) :
প্রকাশিত: মে ১১, ২০২২, ১১:৪৮ পিএম
ফুলবাড়ীতে রেলে পা-কাটা নারীর নাম ও পরিচয় মেলেনি এখনও
ছবি: রেলে পা-কাটা নারী

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে চলন্ত আন্তঃনগর বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে নিচে পড়ে গিয়ে ডান পায়ের কব্জির উপরের অংশ পর্যন্ত কাটা পড়া ৫০ বয়স্কা নারীর এখনও নাম ও পরিচয় উদ্ধার করা যায়নি। তবে তার হাতে শাঁখা ছিল। এতে ধারণা করা হচ্ছে নারীটি হিন্দু সম্প্রদায়ের।

গত সোমবার (৯ মে) রাত আনুমানিক ৮ টার দিকে ফুলবাড়ী রেলস্টেশনের উত্তর দিকে পার্বতীপুরগামী আন্তঃনগর বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেন থেকে নিচে পড়ে যান ৫০ বয়স্কা অজ্ঞাত পরিচয়ের ওই নারী। এতে ট্রেনের চাকায় তার ডান পায়ের কব্জির উপরের অংশ পর্যন্ত কাটা পড়ে। এ সময় ওই নারীর চিৎকারে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। কিন্তু অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়াসহ তার অবস্থা অবনতি ঘটায় তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। বর্তমানে সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে।

নারীকে উদ্ধারকারী স্থানীয় আবু বক্কর সিদ্দিকী বলেন, রাজশাহী থেকে নিলফামারীগামী আন্তঃনগর বরেন্দ্র এক্সপ্রেস ট্রেনটি গত সোমবার রাত ৮টার দিকে ফুলবাড়ী রেলস্টেশন থেকে ছেড়ে পার্বতীপুরের দিকে রওনা দেয়। ট্রেনটি চলে যাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই উত্তর দিকের লাইনের পাশ থেকে ওই নারীর চিৎকার শুনে স্থানীয়রা এগিয়ে যান ঘটনাস্থলে। পরে ওই নারীর ডা পা-কাটা এবং রক্তক্ষরণ অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। পরে তাকে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাতে হয়েছে। আহত ওই নারীর বয়স ৫০ এর মতো হতে পারে। তবে নারীটি নাম-ঠিকানা কোন কিছুই বলেননি। নারীর আচরণ দেখে মনে হয়েছে তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন একজন নারী।

ফুলবাড়ী রেলস্টেশনের টিকেট মাস্টার মো. এনায়েত হোসেন বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। তবে স্টেশন থেকে দূরে ঘটনাটি ঘটার কারণে সেখানে যাওয়া সম্ভব হয়নি। তবে স্থানীয়রা ওই নারীর চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছেন। 

থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আশ্রাফুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি জানার পরপরই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পুলিশ অফিসার পাঠিয়ে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করা গেছে। তবে আহত নারীটির নাম-ঠিকানা কিছুই উদ্ধার করা যায়নি। স্থানীয়রা বলছেন, নারীটি মানসিক রোগী হতে পারেন। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খোঁজখবর রাখা হচ্ছে সার্বক্ষণিকভাবে। 
 



Side banner