• ঢাকা
  • মঙ্গলবার, ১৮ জুন, ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১

বানিয়াচংয়ে ৪ ব্যক্তি নিহতের ঘটনায় বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর লুটপাট থামছে না


FavIcon
মোঃ রহমত আলী, হবিগঞ্জঃ
প্রকাশিত: জুন ১১, ২০২৪, ০২:৫৯ পিএম
বানিয়াচংয়ে ৪ ব্যক্তি নিহতের ঘটনায় বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর লুটপাট থামছে না

হবিগঞ্জে বানিয়াচং উপজেলার মন্দরী ইউনিয়নের আগুয়া গ্রামে সিএনজি অটোরিকশার যাত্রী উঠানোকে কেন্দ্র করে ৪ জন নিহতের ঘটনায় বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর লুটপাট করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এমনকি বাড়িতে থাকা নারীরাও  তাদের দ্বারা লাঞ্চিত হওয়ার ঘটনা ঘটেছে। বর্তমানে পুরুষশূন্য এলাকায় দেশিয় অস্ত্র নিয়ে মহড়া দিচ্ছে একদল বিপদগামী যুবক। 


উললেখ্য গত ৯ মে দুপুরের দিকে আগুয়া বাজারে কাদির মিয়া ও সিএনজি স্ট্যান্ড ম্যানেজার বদির মিয়ার মধ্যে যাত্রী উঠানো নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বর্তমান ইউপি সদস্য সোহেল মিয়া ও পরাজিত ইউপি সদস্য বদির মিয়ার লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে একে অন্যের উপর ঝাপিয়ে পড়েন। শুরু হয় ভয়াবহ সংঘর্ষ। সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই কাদির মিয়া ও সিরাজ মিয়া মারা যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায় লিলু মিয়া। পরে পুুলিশ সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে ময়না তদন্তের জন্য নিহতদের লাশ সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন। ওই ৩ জন মৃত্যুর ঘটনা ছড়িয়ে পরলে বদির মিয়ার পক্ষের লোকজন গ্রেফতার আতংকে এলাকা ছেড়ে অন্যত্র সরে পড়ে। এই সুযোগে ওই দিন রাত থেকেই নিহতের পক্ষের লোকজন  আসামি পক্ষের অন্তত ৪০টি ঘর ভাংচুর করে। এ সময় ঘরে থাকা অন্তত ৩৫ হাজার মণ ধান, গরু, হাস-মুরগি, ছাগল, ধান মাড়াই মেশিন, বেশ কয়েটি মোটরসাইকেল, ফ্রিজ, প্রায় ৩০ ভরি স্বর্ণালংকার, ৩০ লক্ষাধিক টাকা সহ অন্তত ৫ কোটি টাকার মালামাল লুটপাট ও ক্ষতিসাধন হয়। এরকম তান্ডবলিলা গত ৯ তারিখ থেকে অধ্যাবদি চলছে। বাড়িঘর ভাঙ্গা থাকায় পুরুষ শুন্য এলাকায় নারী ও শিশুরা মানবেতর জীবনযাপন করছে। গত ৩০মে সংঘর্ষের ২১ দিন পর আহত জিলু মিয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্তায় মারা যায়। এ নিয়ে মৃত্যর সংখ্যা দাড়ালো (৪) চার জন।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগ ঘটনাস্থলে পুুলিশ মোতায়েন থাকলেও হামলা ভাংচুর কোনোভাবেই থামছে না। 


জেলা পুলিশ সুপার, হবিগঞ্জ- আক্তার হোসেন বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে প্রকৃত দোষীদের আইনের আওতায় আনা। কেহ মিথ্যা মামলায় হয়রানী হবে না।
 


Side banner
Link copied!