• ঢাকা
  • শুক্রবার, ০১ জুলাই, ২০২২, ১৬ আষাঢ় ১৪২৯

খালেদাকে আবার কারাগারে পাঠানো যায় কিনা ভাবতে হবে


FavIcon
অনলাইন ডেস্ক:
প্রকাশিত: মে ২৬, ২০২২, ০৫:৩৩ পিএম
খালেদাকে আবার কারাগারে পাঠানো যায় কিনা ভাবতে হবে
খালেদাকে আবার কারাগারে পাঠানো যায় কিনা ভাবতে হবে

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী খালেদা জিয়াকে আবার কারাগারে পাঠানো যায় কিনা সে বিষয়টি এখন আবার ভাবতে হবে।তিনি বলেন, খালেদা জিয়া দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হওয়া সত্ত্বেও প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতার কারণে দুই বছর কারাগারের বাইরে মুক্ত জীবন যাপন করছেন। এখন তারা যদি প্রধানমন্ত্রীর এই মহানুভবতা গ্রহণ করতে না পারে, জনগণের প্রত্যাশা অনুযায়ী তাকে আবার কারাগারে পাঠাতে যায় কিনা তা এখন ভাবতে হবে।
বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির ২৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর উদ্বোধনী আয়োজন শেষে এ মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী।
তথ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা সব মানুষের জন্য পদ্মা সেতু নির্মাণ করেছেন। যারা এটার বিরোধিতা করেছিল আজকে তাদের ক্ষমা চাওয়া উচিত। অথচ আজকে তারা বিক্ষোভ করছে, খালেদা জিয়া তো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনেকবার হত্যার অপচেষ্টা চালিয়েছে।২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলাই সেটির প্রমাণ। তার প্রতি প্রধানমন্ত্রী যে মহানুভবতা দেখিয়ে যাচ্ছেন, সেটি এখন অনেকে প্রশ্ন করছেন যে, যারা মহানুভবতার মূল্য দিতে জানে না, তাদের প্রতিই মহানুভবতা কেন? ফলে সাধারণ মানুষের অনেকেই প্রশ্ন রাখছেন, খালেদা জিয়াকে আবার কারাগারে পাঠানোর বিষয়ে।
হাছান মাহমুদ বলেন, অনেক সংগঠন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে অনেক রিপোর্ট প্রকাশ করে। কিন্তু আপনারা খোঁজ নিলে জানবেন, বাংলাদেশে গণমাধ্যম যে স্বাধীনভাবে কাজ করে, গণমাধ্যমের যেভাবে বিকাশ হয়েছে, সেটি অনেক উন্নয়নশীল দেশের জন্য উদাহরণ।
তথ্যমন্ত্রী আরও বলেন, সাংবাদিকদের অনেক সংগঠন আছে যেগুলো নানা কারণে বিভক্ত হয়ে গেছে; কিন্তু ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি বিভক্ত হয়নি। আশা করি আগামী ৫০ বছর পরও ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি ঐক্যবদ্ধ থাকবে।
অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক নুরুল ইসলাম হাসিব, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিনসহ ডিআরইউ নেতারা।



Side banner