• ঢাকা
  • রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

মন্দির নির্মাণের দাবিতে নানা স্লোগানে মুখরিত হাবিপ্রবি ক্যাম্পাস


FavIcon
অলংকার গুপ্তা, হাবিপ্রবি প্রতিনিধি:
প্রকাশিত: জানুয়ারি ২২, ২০২৩, ০৮:১৮ পিএম
মন্দির নির্মাণের দাবিতে নানা স্লোগানে মুখরিত হাবিপ্রবি ক্যাম্পাস
ছবি - সংগৃহীত

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে মন্দির নির্মাণের দাবিতে আবারো আজ দুপুর থেকে অবস্থান কর্মসূচী পালন করছেন হাবিপ্রবির সনাতন ধর্মাবলম্বী শিক্ষার্থীরা।

ক্যাম্পসে স্থায়ী কোনো মন্দির না থাকায় সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সরস্বতী পূজা, দীপাবলিসহ বিভিন্ন উৎসব অস্থায়ী ভাবে বিভিন্ন জায়গায় আয়োজন করতে হয়। সনাতনী শিক্ষার্থীদের জোড়ালো দাবির প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের রিজেন্ট বোর্ডের ৩০ তম সভায় মন্দির নির্মাণের জন্য “সিদ্ধান্ত বিবিধ-১” গৃহীত হলেও তা ৮ বছরেও বাস্তবায়িত হয় নি।

গতবছর শীতকালীন ছুটি শুরুর আগে প্রশাসন থেকে আশ্বাস দেওয়া হয় যে, ছুটি শেষ হলে পূর্বের কমিটি মন্দির নির্মাণের বিষয়ে কাজ করা শুরু করবে। সেক্ষেত্রে যদি ওই কমিটির কোন সদস্য উপস্থিত না থাকে তাহলে নতুন করে কমিটি গঠন করা হবে। কিন্তু ছুটি শেষ হওয়ার ৮ম তম দিনেও ( ৮ জানুয়ারি, ২০২৩) কোনো কার্যক্রম শুরু না হলে সনাতন ধর্মাবলম্বী শিক্ষার্থীরা অবস্থান কর্মসূচি গ্রহণ করে।

চলতি বছরের ৮ জানুয়ারির আন্দোলন চলাকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক অধ্যাপক ড.শ্রীপতি  সিকদার জানিয়েছিলেন, "আগামী ১২ তারিখের মধ্যে একটি কমিটি গঠন করা হবে। সেই কমিটি ৭ কর্মদিবসের মধ্যে জায়গা নির্ধারনের রির্পোট জমা দিবে।"

কিন্তু কথার সাথে কাজের কোনো মিল পাওয়া যায় নি। আজ রবিবার (২২ জানুয়ারি) সনাতনী শিক্ষার্থীদের সাথে প্রশাসনের এক বৈঠক বসে দুুপুর ১২.৩০ মিনিটে। মিটিং এ মন্দির নির্মাণের বিষয়ে ইতিবাচক কোনো পতিক্রিয়া না পাওয়ার সনাতনী শিক্ষার্থীরা আবারো আজ ২২ জানুয়ারি আন্দোলনে নামেন। এ মন্দির নির্মাণের বিষয়ে ইতিবাচক কোনো পতিক্রিয়া না পাওয়ার সনাতনী শিক্ষার্থীরা আবারো আজ ২২ জানুয়ারি আন্দোলনে নামেন।

এসময় সনাতনী শিক্ষার্থীরা প্রথমে টিএসসিতে অবস্থান নেন এবং পরবর্তীতে তারা প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। আনুমানিক রাত ৭.৩০ মিনিটে সনাতনী শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের মানানীয় ভাইস   চ্যান্সেলর এর বাসভবনের সামনে অবস্থান নেওয়ার জন্য যাত্রা শুরু করেন এবং সেখানে অবস্থান নেন।



Side banner