• ঢাকা
  • রবিবার, ০৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হকের বিরুদ্ধে ঘুষ দাবীর অভিযোগ


FavIcon
নিজস্ব প্রতিবেদক:
প্রকাশিত: জানুয়ারি ৪, ২০২৩, ০৯:০২ পিএম
শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হকের বিরুদ্ধে ঘুষ দাবীর অভিযোগ
ছবি: সংগৃহীত

পটুয়াখালীর বাউফলে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হকের বিরুদ্ধে ঘুষ দাবীর অভিযোগ পাওয়া গেছে। উৎকোচ না দেওয়ায় তারই অফিস সহকারি জালাল উদ্দিন আহমেদকে চাকুরিচ্যুতির হুমকি দিয়েছেন শিক্ষা কর্মকর্তা। গত মঙ্গলবার ( ৩ জানুয়ারী) এ ব্যাপারে জালাল উদ্দিন বাউফলের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক গত ২৮ ডিসেম্বর উত্তর মদনপুরা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসা পরিদর্শন করেন। ওই পরিদর্শনের একটি প্রত্যয়নপত্র প্রস্তত করে শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হকের স্বাক্ষর নেয়ার জন্য যান তারই অফিস সহকারি জালাল উদ্দিন। এসময় জালাল উদ্দিনকে শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক বলেন, মাদ্রাসা কতৃপক্ষ টাকা পয়সা দিয়েছে? জবাবে জালাল উদ্দিন বলেন, স্যার মাদ্রাসাটি আমার গ্রামের তাই আমি টাকা পয়সা নিতে পারিনা। আপনি দয়া করে প্রত্যয়নপত্রে স্বাক্ষর করে দিন। কিন্তু শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক টাকা ছাড়া ওই প্রত্যয়নপত্র দিতে অপরাগতা প্রকাশ করেন।


বিষয়টি নিয়ে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে অফিস সহকারি জালাল উদ্দিনকে দেখে নেয়ার হুমকি দেন তিনি। এ ব্যাপারে মঙ্গলবার জালাল উদ্দিন আহমেদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। জালাল উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হকের স্বেচ্ছাচারিতার কারনে আমি অফিসে কাজ করতে পারছি না। তার অনিয়ম দুর্নীতির প্রতিবাদ করায় আমাকে চাকুরিচ্যুত করার হুমকি দিয়েছেন। তবে ঘুষ দাবির অভিযোগ অস্বীকার করে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হক বলেন, ওই মাদ্রাসা পরিদর্শন করে অনেক অসঙ্গতি পেয়েছি। তাই প্রত্যয়নপত্র দেয়া সম্ভব নয়। প্রত্যয়নপত্রের জন্য জালাল উদ্দিন আমাকে বাধ্য করতে চাচ্ছেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আল আমিন বলেন, বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাজমুল হকের বিরুদ্ধে  নিয়মিত কর্মস্থালে থাকেন না বলেও অভিযোগ ওঠেছে ।



Side banner