• ঢাকা
  • শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮

মির্জাগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর,প্রভাষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ


FavIcon
মাসুম বিল্লাহ, মির্জাগঞ্জ:
প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৭, ২০২১, ০৫:০৪ পিএম
মির্জাগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর,প্রভাষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ
মির্জাগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধর,প্রভাষকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ

মির্জাগঞ্জে যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে মোঃ হুমায়ুন কবির নামে এক কলেজ শিক্ষকের বিরুদ্ধে। তিনি উপজেলা সুবিদখালী সরকারি কলেজের প্রভাষক। এ ঘটনায় তার দ্বিতীয় স্ত্রী মোসাঃ নুপুর বেগম (৩১) গত ৬ ডিসেম্বর মির্জাগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে জানাযায়, নুপুর বেগম তার দ্বিতীয় স্ত্রী। ২০০৯ সালে তাদের ইসলামি শরিয়াহ মোতাবেক বিবাহ হয়। ওই ঘরে তার দুটি কন্যা ও একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বিবাহের পর থেকে প্রভাষক হুমায়ুন কবির নুপুরকে তার বাবার বাড়ি থেকে ২ লক্ষ টাকা যৌতুক আনিয়া দিতে বলেন। এ টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে নুপুরকে প্রায় শারীরিক ভাবে নির্যাতন করতেন তিনি। তারই ধারাবাহিকতায় ঘটনার দিন রাত সারে ৯টার দিকে যৌতুকের টাকার জন্য অকথ্য ভাষায় গালিগালাচ শুরু করলে তাতে প্রতিবাদ করলে নুপুরের চুলের মুষ্টি ধরে এলোপাথারি পিটাইয়া ও কিল ঘুশি মারিয়া জখম করে। এমনকি যৌতুকের টাকা না দিলে এবং উক্ত বিষয় মামলা করিলে তাকে তালাক দিয়া অনত্র বিবাহ করিবে বলিয়া হুমকি প্রদর্শন করে। পরে নুপুরের ডাক চিৎকার শুনে স্থানীয়রা উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করেন। 


অভিযুক্ত কলেজ শিক্ষক মোঃ হুমায়ুন কবির বলেন, এ ঘটনা বানোয়াট ও মিথ্যা। আমি কোন যৌতুক দাবি বা স্ত্রীকে কোন রকম মারধর করি নাই।মির্জাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন তালুকদার বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।



Side banner